বরিশালে ধর্মীয় ভাব গাম্ভির্যে পবিত্র ঈদ-ই মিলাদুন্নবী (সা.) পালিত

ধর্মিয় ভাব গাম্ভির্য ও যথাযথ মর্যাদায় বরিশালে পালিত হয়েছে পবিত্র ঈদ-ই মিলাদুন্নবী (সা.)। দিনটি উদযাপনে শুক্রবার সকাল থেকে সরকারি এবং বেসরকারি উদ্যোগে আলোচনা সভা, বিশেশ দোয়া-মোনাজাতসহ বিভিন্ন ধর্মীয় অনুষ্ঠান পালন করা হয়েছে।

এর মধ্যে বরিশাল জেলা প্রশাসন এর সহযোগিতায় বাদ জুমা নগরীর কালেক্টরেট জামে মসজিদে এক আলোচনা সভার আয়োজন করে ইসলামিক ফাউন্ডেশন। এতে প্রধান অতিথি ছিলেন বরিশালের অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনার মো. আব্দুর রাজ্জাক।

বরিশাল জেলা প্রশাসক এসএম অজিয়র রহমানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় বিশেষ অতিথি ছিলেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) শহীদুল ইসলাম এবং ইসলামিক ফাউন্ডেশনের বিভাগীয় পরিচালক এবিএম শফিকুল ইসলাম।

এছাড়াও আলোচনা সভায় বিভিন্ন সরকারি দপ্তরের উর্ধ্বতন কর্মকর্তাবৃন্দ এবং ধর্মপ্রাণ মুসল্লিরা উপস্থিত ছিলেন।

সভায় মহানবী হযরত মুহাম্মদ (সা.) জীবনী নিয়ে আলোচনা করেন বক্তারা। তারা মহানবীর জীবনাদর্শ মেনে চলার জন্য সকলের প্রতি আহ্বান জানান। পাশাপাশি সরকারিভাবে দিবসটি পালন করায় সরকারের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন আলোচকবৃন্দ। আলোচনা সভা শেষে এক বিশেষ দোয়া-মোনাজাত অনুষ্ঠিত হয়।

এর আগে পবিত্র ঈদ-ই মিলাদুন্নবী (সা.) উপলক্ষে দোয়া মাহফিল ও শিশুদের মাঝে বিভিন্ন ধর্মীয় বিষয়ক প্রতিযোগিতার পুরস্কার বিতরণ করেন জেলা প্রশাসক এসএম অজিয়র রহমান। শুক্রবার সকাল সাড়ে ১০টায় নগরীর অমৃত লাল দে সড়কে শিশু একাডেমিতে এই পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠিত হয়।

এছাড়া বাদ জুমা বরিশাল নগরীর প্রতিটি মসজিদে দিবসটি উপলক্ষে বিশেষ দোয়া মোনাজাত এবং মিলাদ মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়। জুমার নামের খুদবায় মহানবী (সা.) এর জীবনী তুলে ধরে বয়ান করেন ইমাম এবং খতিবগন।

তাছাড়া ঈদ-ই মিলাদুন্নবী উপলক্ষে বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের রোড, কেন্দ্রীয় কারাগােেরর হাজতি ও কয়েদী এবং শিশু পরিবারের নিবাসিদের মাঝে উন্নত মানের খাবার পরিবেশন করা হয়েছে।

বরিশাল কেন্দ্রীয় কারাগারে জেলা ম্যাজিষ্ট্রেট এর পক্ষে উন্নতমানের খাবার বিতরণ করে অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিষ্ট্রেট মো. রাজিব আহমেদ। এছাড়া রাতে বিভিন্ন এলাকায় ওয়াজ মাহফিল করেছেন ধর্মপ্রাণ মুসল্লিরা।