নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে ইলিশ ধরার অভিযোগে কুয়াকাটায় ৩ জেলেকে জরিমানা

কলাপাড়া (পটুয়াখালী) প্রতিনিধিঃ

মহিপুরের গঙ্গামতি থেকে সরকারি নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে বঙ্গোপসাগরে মা-ইলিশ ধরার অভিযোগে তিন জেলেকে ১৫০০০ টাকা জরিমানা করা হয়েছে। বুধবার সকাল ৯.৩০ ঘটিকার সময় কুয়াকাটা মহিপুর ও গঙ্গামতি এলাকায় নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও সহকারী কমিশনার (ভূমি) জনাব জগৎবন্ধু মন্ডলে’র নেতৃত্বে ভ্রাম্যমাণ আদালত অভিযান চালিয়ে মৎস রক্ষা ও সংরক্ষণ আইন,১৯৫০ এর ৪ ধারা লংঘনে ৫(১) অনুযায়ী তাদের জরিমানা করে।

দোষী ব্যক্তিরা হলেন- মহিপুর থানার নতুনপাড়া গ্রামের মো. মফেজ ফরাজীর ছেলে মো. ফেরদেীস ফরাজী, পশ্চিম চাপলি গ্রামের মোহাম্মাদ খলিফার ছেলে সোহাগ খলিফা ,নতুনপাড়া গ্রামের মো. কুদ্দুস মুসুল্লীর ছেলে মো. সাইফুল ইসলাম।

কুয়াকাটা নৌ পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ পরিদর্শক কামরুল ইসলাম বলেন, মঙ্গলবার সকাল থেকে আলীপুর, মহিপুর, কুয়াকাটা, গঙ্গামতি, চাড়িপাড়াসহ উপকূলের বিভিন্ন স্থানে নৌ ফাঁড়ি পুলিশের সহযোগিতায় ভ্রাম্যমাণ আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সমুদ্রে মা ইলিশ রক্ষায় বিশেষ অভিযান চালায় ।
তিনি আরও বলেন, ১৪ অক্টোবর থেকে ৪ নভেম্বর পর্যন্ত ইলিশের প্রজনন মৌসুম থাকবে। এ সময় উপক‚লের নদ-নদী এবং বঙ্গোপসাগরে ইলিশ মাছ ধরতে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হয়েছে। এ উদ্যোগ সফল করতে গত এক সপ্তাহ ধরে প্রচারণা চালানো হয়েছে।

ইলিশের প্রজনন সময়ে সারা দেশে ইলিশ আহরণ, পরিবহন, মজুদ, বাজারজাত করা আইনত দন্ডনীয় অপরাধ। এ সময় যদি কেউ আইন অমান্য করে তাঁকে এক বছর থেকে সর্বোচ্চ দুই বছরের সশ্রম কারাদন্ড অথবা ৫ হাজার টাকা ।