বরিশালে নতুন ৫৮ জনের করোনা শনাক্ত, আক্রান্ত মুক্তিযোদ্ধার মৃত্যু

 

বরিশাল:চিকিৎসক, নার্স ও পুলিশের সদস্যসহ বরিশালে নতুন করে ৫৮ জনের শরীরে করোনা ভাইরাস শনাক্ত হয়েছে।  এ নিয়ে বরিশাল জেলায় মোট ৭৫৯ জনের করোনা শনাক্ত হলো। এছাড়া বুধবার (১০ জুন) ৮ জন করোনায় আক্রান্ত ব্যক্তি সুস্থতা লাভ করেছে। ফলে এ পর্যন্ত বরিশাল জেলায় মোট ১২৫ জন করোনা থেকে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছে। অপরদিকে বজলুর রহমান নামে মৃত ব্যক্তির নমুনা পরীক্ষার রিপোর্টে করোনা পজেটিভ আসায় এ জেলায় মোট মৃত্যুর সংখ্যা গিয়ে দাড়িয়েছে ৯ জনে। বুধবার (১০ জুন) দিবাগত রাতে জেলা প্রশাসনের মিডিয়া সেল সূত্রে জানাগেছে, বরিশাল নগরের নিউ ভাটিখানা এলাকার বাসিন্দা বীর মুক্তিযোদ্ধা বজলুর রহমান (৭০) নামে এক ব্যক্তি বুধবার বিকেল সাড়ে ৪ টার দিকে শের ই বাংলা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের আইসিইউতে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যু বরণ করে। এরআগে ৯ জুন ভোর সাড়ে ৪ টার দিকে তিনি এ হাসপাতালের করোনা ওয়ার্ডে উপসর্গ নিয়ে ভর্তি হন। যার মৃত্যুর পর নমুনা পরীক্ষার রিপোর্টে করোনা পজেটিভ এসেছে। এদিকে জেলায় নতুন আক্রান্ত ৫৮ জনের মধ্যে বরিশাল মেট্রোপলিটন পুলিশের ৫ জন সদস্যসহ শের-ই-বাংলা মেডিক্যাল কলেজের ১ জন মেডিকেল অফিসার, ১ জন ইন্টার্ন চিকিৎসক, ৬ জন নার্স ও ১ জন ড্রাইভার রয়েছেন। বাকীদের মধ্যে বরিশাল নগরের সাগরদি, বাংলাবাজার, রুপাতলি, কাউনিয়া, সদর রোড, কলেজ এভিনিউ, কালুশাহ সড়ক, চান্দুর মার্কেট, হাসপাতাল রোড, বগুরা রোড, কাশিপুর, ভাটিখানা, গোডাউন রোড, নথুল্লাবাদ এলাকার ১৯ জন রয়েছেন। অপরদিকে গৌরনদী, আগৈলঝাড়া, উজিরপপুর, বানারীপাড়া, মেহেন্দিগঞ্জ, বাবুগঞ্জ, মুলাদী ও বরিশাল সদর উপজেলার ২৫ জন রয়েছেন। যারমধ্যে বানারীপাড়া উপজেলায় ১ জন চিকিৎসক ও উজিরপুর উপজেলায় ১ জন উপ সহকারি কমিউনিটি মেডিকেল অফিসার রয়েছেন। বরিশারের জেলা প্রশাসক এস, এম, অজিয়র রহমান জানান, রিপোর্ট পাওয়ার পর পরই নতুন শনাক্ত হওয়া ওই ৫৮ জন ব্যাক্তির অবস্থান অনুযায়ী তাদের লকডাউন করা হয়েছে।  উল্লেখ্য বরিশাল জেলায় মোটা আক্রান্তদের মধ্যে ২শত জন নারী ও ৫৫৯ জন পুরুষ রয়েছেন। যাদের মধ্যে শূন্য থেকে ২০ বছর পর্যন্ত ৪২ জন, ২০ থেকে ৫০ বছর পর্যন্ত ৫৮৩ জন এবং পঞ্চাশোর্ধ ১৩৪ জন ব্যক্তি রয়েছেন। এছাড়া গোটা জেলার মধ্যে এ পর্যন্ত বরিশাল নগরে ৫৯৯ জন, সদর উপজেলায় ১৫ জন, বাবুগঞ্জে ২৯ জন, উজিরপুরে ২৬ জন, মেহেন্দীগঞ্জে ১৩ জন, বাকেরগঞ্জে ২১ জন, হিজলায় ৫ জন, মুলাদীতে ১২ জন, বানারীপাড়ায় ১৩ জন, আগৈলঝাড়ায় ১০ জন এবং গৌরনদীতে ১৬ জন করোনা রোগী শনাক্ত হয়।