শনিবার, ১১ই জুলাই, ২০২০ ইং, বিকাল ৪:০৫

বরিশালে ১৪৩টি ক্ষতিগ্রস্থ পরিবারের হাতে সেনাবাহিনীর খাদ্যসামগ্রী ও নগদ অর্থ প্রদান

 

বরিশাল :গত ২০ মে বাংলাদেশের অন্যান্য নদী উপকূলিয় জেলাগুলোর মত বরিশালেও ঘূর্ণিঝড় আম্পান আঘাত হানে। এই ঘুর্ণিঝড় মোকাবেলায় শেখ হাসিনা সেনানিবাস তথা ৭ পদাতিক ডিভিশন সম্পূর্ণ সময় তৎপর ছিল। ৬ পদাতিক ব্রিগেডের আওতাধীন ৬২ ইষ্ট বেংগলের নেতৃত্বে বরিশাল জেলার প্রতিটি উপজেলায় একটি করে মোট ১০টি (ডিএমটি) দূর্যোগ মোকাবেলা দল ও ০১টি স্পেশাল টিম গঠন করা ছিল যাতে তারাতাৎক্ষণিক ব্যবস্থা নিতে পারে। এছাড়াও ঘূ‌র্ণিঝড় মোকাবেলায় ৬২ ই বেংগল কর্তৃক বরিশাল জেলার সকল বেসামরিক প্রশাসনের সাথে সমন্বয় সাধন করেছে। উত্ত ঘূর্ণিঝড়ে বরিশাল জেলার প্রায় ৮ লক্ষ জনসংখ্যা দূর্যোগের স্বীকার হয়, প্রায় ২৫ হাজার ঘর-বাড়ী বিধুস্ত হয়, প্রায় ৬ হাজার হেক্টর জমি ‘ক্ষতিসহ চিংড়ির ঘের ও মাছের খামার প্লাবিত হয়। ঘর্ণিঝড় আম্পান পরবর্তী সময়ে শেখ হাসিনা সেনানিবাসের পক্ষ হতে বরিশাল জেলার ১৪৩টি ক্ষতিগ্রস্থ পরিবারের হাতে শুকনা খাদ্যসামগ্রী, স্যালাইন, বিশুদ্ধ পানি, পানি বিশুদ্ধকরণ ট্যাবলেটসহ নগদ অর্থ প্রদান করা হয়। পাশাপা‌শি ঘূর্ণিঝড় বিধ্বস্ত হওয়া ১০টি ঘর ৬২ ই বেংগলের ক্যাপ্টেন আশফানের তত্ত্বাবধানে মেরামত করে দেয়া হয়।